২৪ টি মসজিদে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালন করে জনসেবা যুব কল্যাণে আমরা।

 

সীতাকুন্ড প্রতিনিধি: মোঃ মহিন উদ্দিন

চট্রগ্রামে সীতাকুন্ডে জনসেবা যুব কল্যাণে আমরা সংগঠনের উদ্যোগে ৫নং বাড়বকুন্ড ইউনিয়নে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালন করা হয়েছে।

বাড়ছে মানুষ, বাড়ছে কার্বন-ডাই-অক্সাইড, ধ্বংস করা হচ্ছে বন, কাটা হচ্ছে গাছ, অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে নতুন প্রজন্মের ভবিষ্যৎ।
দেশের এমন দূর্যোগময় পরিস্থিতিতে ও কাটা হচ্ছে গাছ, নষ্ট হচ্ছে পরিবেশ।

“”বৃক্ষরোপণ করবো বেশ,
বদলে দেব পরিবেশ।
দেশের বায়ু, দেশের মাটি,
গাছ লাগিয়ে করবো খাঁ‌টি””

এই স্লোগান গানকে সামনে রেখে জনসেবা যুব কল্যাণে সংগঠনের উদ্যোগে আয়োজিত বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি মাধ্যমে দেশের পরিস্থিতি বদলে দিয়ে নতুন এক আশার আলো উপহার দিয়ে চাই প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশকে।
প্রাকৃতিক ও পরিবেশগত ভারসাম্য রক্ষায় বৃক্ষরোপণের ভূমিকা যেমন ব্যাপক ও সুদূরপ্রসারী, তেমনি অর্থনৈতিক উন্নয়নে ও এর গুরুত্ব ভূমিকা রয়েছে।

আজ প্রথম পর্যায়ে সকাল ১০ টায় বাড়বকুন্ড মান্দারীটোলা ঈদগা মাঠে প্রথম চারা গাছ রোপণ করা হয়। এর পরে ৫নং বাড়বকুন্ড ইউনিয়নে বিভিন্ন এলাকায় বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালন করে। উল্লেখিত মসজিদ সমূহ হলো নুর মোহাম্মদ সূফি জামে মসজিদ, জরিফ মুনসী জামে মসজিদ, মাওলানা ওবায়দুল হক জামে মসজিদ, বায়তুল আমান জামে মসজিদ, দাঁড়ালিয়া পাড়া জামে মসজিদ, ভূলাইপাড়া আব্দুল আলীম মুহুরি জামে মসজিদ, জুদারপাড়া জামে মসজিদ, আলা উদ্দিন চৌধুরী পাড়া জামে মসজিদ, গোপ্তাখালী জামে মসজিদ, মাহমুদাবাদ জামে মসজিদ, নডালিয়া জামে মসজিদে সহ মোট ২৪ টি মসজিদে ৫ টি ফলজ ও ঔষধি গাছের চারা রোপণ করা হয়েছে।

উক্ত বৃক্ষরোপণ কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বগাচতর পুলবাহার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সম্মানিত প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ মহসিন স্যার মহোদয়, বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট তরুণ ব্যবসায়ী জাবের আল মাহমুদ ও দ্বীপ্ত টিভির ম্যানেজিং ডাইরেক্টর রেজাউল হোসেন পলাশ, এছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন জনসেবা যুব কল্যাণে আমরা এর সম্মানিত সভাপতি মোঃ তাহের, অর্থসম্পাদক আক্তার হোসেন, দপ্তর সম্পাদক মোঃ মহিন উদ্দিন, আইন বিষয়ক সম্পাদক আবু সুফিয়ান, প্রকাশনা সম্পাদক আজগর আলী মনির, সহ-প্রচার সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, সহ-সমাজ কল্যাণে সম্পাদক হাসান জাকারিয়া, ব্লাড বিষয়ক সম্পাদক মেহেদী হাসান হ্নদয়,
উক্ত বৃক্ষরোপণ কর্মসূচিতে প্রত্যেক মসজিদের সম্মানিত ঈমাম, মসজিদ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক উপস্থিত ছিলেন।

আজ দ্বিতীয় পর্যায়ে দুপুর ২ টা থেকে সীতাকুন্ড হতে বড় কুমিরা পযর্ন্ত ৩০ জন ভবঘুরে রাস্তায় পড়ে থাকা অসহায় মানুষের মাঝে বিরিয়ানি বিতরণ করা হয়েছে।

মোহাম্মদ মহসিন বলেন, জনসেবা যুব কল্যাণে আমরা সংগঠন কে আমি ব্যক্তিগত ভাবে সাধুবাদ জানায় এমন মসজিদ ভিক্তিক বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালন করার জন্য। বৃক্ষরাজি মানুষের সুখ- দুঃখের সাথী। বৃক্ষরোপণের মাধ্যমে আমাদের চারপাশের পরিবেশকে সাজাতে হবে সবুজ শ্যামলিমায়। নতুন প্রাণের স্পন্দনে করে তুলতে হবে আমাদের প্রকৃতিকে। গাছ আমাদের অকৃত্রিম বন্ধু রক্ষক। তাই আমাদের বেশি করে গাছ লাগাতে হবে।

জাবের আল মাহমুদ বলেন, দেশের এই সংকটের কথা বিবেচনা করে আমাদের সবাইকে বেশি করে গাছ লাগাতে হবে। তার সাথে আমাদের সবাইকে সচেতন থাকতে হবে যেন বৃক্ষ নিধন বন্ধ করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares