সীতাকুণ্ডু করোনা উপসর্গ নিয়ে এস আই একরামুল ইসলামের মৃত্যু ।

 

সীতাকুণ্ডু প্ররতিনিধি: মোঃ মহিন উদ্দিন

সীতাকুণ্ড মডেল থানার এস আই একরামুল করোনা উপসর্গ নিয়ে চলে গেলে না ফেরার পথে।
তার বাসা থেকে লাশটি উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে তার মুখে ফেনা ছিলা। করোনা পরীক্ষার জন্য সেম্পল নেওয়া হয়েছে।

সূত্রে জানা যায় তিনি ৪দিন ধরে সর্দি ও জ্বরে ভুগছিলেন। তিনি পৌরসদরস্থ উত্তর বাজারের ভাড়া বাসায় একা থাকতেন। শনিবার সকালে মারা যান তিনি।

নিহতের গ্রামের বাড়ি কুমিল্লা জেলার লাকসাম থানার কাঠালিয়া এলাকায়।

থানা সূত্রে জানা যায় সীতাকুন্ড পৌরসভার উত্তর বাজারে ভূইঁয়া টাওয়ার নামের একটি ভবনের ব্যাচেলর বাসায় থাকতেন এসআই ইকরাম। গত ২ জুন থেকে সর্দি-জ্বরে ভুগছিলেন তিনি। চিকিৎসকের পরামর্শে ওষুধও খাচ্ছিলেন। আজ সকাল ১০টার দিকে একই ফ্ল্যাটের অন্য দুজন তাকে ঘুম থেকে ডাকতে গেলে অচেতন অবস্থায় মুখে ফেনা দেখতে পান।

থানায় খবর দিলে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে সীতাকুন্ড স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠালে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

সীতাকুন্ড মডেল থানার ইন্সপেক্টর (অপারেশন) আবুল কালাম আজাদ জানান, চার দিনেও জ্বর না কমাতে আজ করোনা পরীক্ষার নমুনা দেওয়ার কথা ছিল এসআই ইকরামের।

সীতাকুন্ড উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা নুর উদ্দিন রাশেদ জানান, নিহতের মুখে ফেনা ছিল। এ কারণে প্রাথমিকভাবে স্ট্রোকে মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে তিনি যেহেতু জ্বর ও সর্দিতে ভুগছিলেন তাই করোনা পরীক্ষার নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares